লকডাউনে ছাড় ঘোষণা করলো ভারতের কেন্দ্র সরকার


দ্রুত গতিতে ভারত সহ সম্পূর্ণ বিশ্বে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে চলেছে।তবে এখনও পর্যন্ত করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণের কোনো ওষুধ বাজারে আসেনি।এই কারণে বিশ্বের প্রায় প্রতিটি বেশ জনসাধারণের বাঁচানোর জন্য লকডাউন ঘোষণা করেছে।কারণ বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, বর্তমান পৃথিবীতে করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণ করার একমাত্র পথ লকডাউন।করোনা ভাইরাসের উৎপত্তি স্থল সম্পর্কে সঠিক ভাবে গেলেও।সারা বিশ্বের মানুষ মনে করেন করোনা ভাইরাসের উৎপত্তি হয়েছে চীন দেশের উহান শহর থেকে।


তবে যাই হোক করোনা ভাইরাসের কারণে সারা ভারতবর্ষ জুড়ে ২১ দিনের লকডাউন শেষ হওয়ার পর দ্বিতীয় দফায় ৩ রা মে পর্যন্ত আবার লকডাউন ঘোষণা করেছে ভারতের কেন্দ্র সরকার।তবে এই লকডাউন এর কারণে সমস্যায় পড়ছে দেশের সাধারণ মানুষ।তাদের কথা চিন্তা করে কেন্দ্র সরকার ঘোষণা করেন ২০ ই এপ্রিলের পর থেকে কৃষকেরা চাষের কাজ করতে পারবে।এছাড়া কেন্দ্র সরকার আরও ঘোষণা করেন দুধ, পোলট্রি, চা, কফি চাষের কাজ করা যাবে ২০ ই এপ্রিলের পর থেকে।এছাড়া এই দিন থেকে সারের দোকান খুলবে।ই-কমার্স ও বিপিও গুলি খুলবে সরকারের অনুমতি সাপেক্ষে।তবে আন্তঃরাজ্য পর্ণ পরিবহন চালু করবেন সরকার করা নজরদারির মধ্যে দিয়ে।


লকডাউনের ফলে যেসব পরিবার সমস্থায় পড়ছে।তাদের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিচ্ছে ভারতের রাজ্য ও কেন্দ্র সরকার।বর্তমানে ভারতের কেন্দ্র সরকার ক্ষতিগ্রস্থ মানুষের জন্য বিশেষ প্যাকেজ ঘোষণা করলেন।কেন্দ্র সরকার ঘোষণা করেন ৫.২৯ কোটি মানুষের সরকার  মূল্যে রেশন দেবে।এছাড়া ভারতের অর্থমন্ত্রকের তরফ থেকে আরো জানানো হয়েছে ভারত সরকার ৩২ কোটি মানুষের জন্য ২৯,৩৫২ কোটি টাকার প্যাকেজ এনেছে।

Post a Comment

Previous Post Next Post