করোনা নিয়ে ভারতবাসীর জন্য সুসংবাদ দিলো WHO


বর্তমান বিশ্বের সবথেকে ক্ষতিকর এবং সবথেকে বড়ো ভিলেন করোনা ভাইরাস।যার কারণে সারাবিশ্বের অর্থনীতি ধ্বংসের মুখে।তবে এখনও পর্যন্ত করোনা ভাইরাস পৃথিবীর বুকে নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হয়নি।এই ভাইরাস প্রতিরোধ করার কোনো রকম ঔষধ এখনও তৈরি হয় নি।তবে বর্তমানে বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, এই ভাইরাস প্রতিরোধ করার এক মাত্র পথ লকডাউন।এই কারণে পৃথিবীর প্রায় প্রতিটি দেশে লকডাউন চলছে।তবে এখনও লকডাউনের মাধ্যমে করোনা ভাইরাস সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হয় নি।করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা দ্রুত গতিতে বেড়ে চলেছে।


বর্তমানে পৃথিবীতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রুগীর সংখ্যা ১,৫১৮,৭১৯ জন। এই করোনা ভাইরাস আক্রান্ত মানুষের মধ্যে আবার ৩৩০,৫৮৯ জন মানুষ সুস্থ হয়ে উঠেছেন।করোনা ভাইরাস সবচেয়ে বেশি ক্ষতি করছে যাদের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম অর্থাৎ বয়স্ক এবং শিশুদের।এখন পর্যন্ত ভারতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা ৫৫০০ জনেরও বেশি।তবে আর মধ্যে অনেকেই সুস্থ হয়ে উঠেছেন।


তবে এই মাত্র ভারতবাসীর জন্য সুখবর দিলো বিশ্ব সাস্থ সংস্থা WHO।ভারতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে।ফলে অনকে সাধারণ মানুষ গোষ্ঠী সংক্রমণের আতঙ্কে ভুগছেন।করোনা ভাইরাসের গোষ্ঠী সংক্রমণ শুরু হলে উৎস সম্পর্কে জানা যায় না।তবে ভারতে আজ পর্যন্ত যেসব মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে তাদের উৎস সম্পর্কে জানা যাচ্ছে।এই কারণে দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার বিশ্ব সাস্থ সংস্থার WHO প্রধান  পুনম ক্ষেত্রপাল সিং দাবি করেন, যেহেতু ভারতে এখনও পর্যন্ত উৎসের খবর পাওয়া যাচ্ছে। সেহেতু ভারতে এখনো পর্যন্ত গোষ্ঠী সংক্রমণ শুরু হয়ে গিয়েছে এটা বলা যাবে না।  

Post a Comment

Previous Post Next Post